কুকুরকেও নাগরিকত্ব দেওয়া হয় যে দেশে !

কুকুরকেও নাগরিকত্ব দেওয়া হয় যে দেশে !

চ্যানেল নিউজ, ঢাকা : মানুষকে নিয়েই একটি দেশ। যারা ওই দেশের নাগরিক। পশু-পাখিদের কোনো গণ্ডি নেই। নেই কোনো সীমানা। এগুলোর বিচরণ পৃথিবী জুড়ে। তাই একটি দেশের নাগরিক হিসেবে পশু-পাখিদের স্বীকৃতি দেওয়া হয় না। অথচ পৃথিবীর এমন একটি দেশ আছে যেখানে কুকুরদেরও নাগরিকত্ব দেওয়া হয়। জানুন অবাক করা এই দেশ সম্পর্কে।

দেশে এমন বহু যৌথ পরিবার রয়েছে যেখানে একত্রে ২৫-৩০ জন সদস্য বাস করেন। তবে আজ আমরা এমন একটি দেশের কথা বলব যেই দেশের মোট জনসংখ্যাই মাত্র ৩৮ জন। যার মধ্যে আবার ৩টি কুকুরও রয়েছে। এটি একটি মাইক্রোনেশন, যার নাম মোলোসিয়া রিপাবলিক। এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট অনুসারে, এই দেশের নাগরিকদের তালিকায় ৩টি কুকুরও রয়েছে।

এই দেশটি আমেরিকার নেভাদার কাছে অবস্থিত। এটি কেভিন বাগ নামে এক শাসকের রাজত্বে চলে। মোট ১১ একর জমিতে সীমানা রয়েছে ২ দশমিক ২৮ একর। ডেটন ভ্যালিতে নির্মিত এই মাইক্রোনেশন সম্পর্কিত অনেক আকর্ষণীয় তথ্য রয়েছে। এখানে কুকুররাও নাগরিকত্ব পায় এবং এর শাসক কেভিন বাগ নিজেকে স্বাধীন দেশের শাসক মনে করেন। তিনি সর্বদা সামরিক ইউনিফর্মে থাকেন এবং তার গায়ে পদক ঝোলানো থাকে। তিনি নিজেকে অনেক উপাধিতে ভূষিত করেছেন।

এই দেশের নিজস্ব স্বতন্ত্র মুদ্রাও রয়েছে, যার নাম ভেলোরা। অর্থনীতি চালানোর জন্য, ব্যাংক অব মোলোসিয়া নামে একটি ব্যাংক এবং নিজস্ব চিপ কয়েন এবং মুদ্রিত নোট রয়েছে। শুধু তাই নয়, মোলোসিয়া আরেকটি মাইক্রোনেশন মোস্তাচেস্তানের সঙ্গে যুদ্ধও করেছে এবং জয়লাভও করেছে। এই দেশটি এখনও পর্যন্ত নিজেদের জাতীয় সঙ্গীতকে দুবার পরিবর্তন করেছে এবং এর পতাকা নীল, সাদা এবং সবুজ রঙে রঞ্জিত।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

themesbazartvsite-01713478536