1. send2titas@gmail.com : admincn :
  2. editorctvnews@gmail.com : Channel News Admin : Channel News Admin
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
বসুন্ধরা গ্রুপে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পুলিশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পদক পেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার শাখাওয়াত হোসেন অগ্নিঝড়া মার্চে নানা রাষ্ট্রীয় কর্মসূচী পালনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রস্তুতি সভা । ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত পালিত রাসুল (সাঃ) শবে বরাতে যেসব আমল করেছেন সারা দেশে পবিত্র শবে বরাত পালিত হচ্ছে আজ পবিত্র শবে বরাত দিনাজপুরে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় গ্রাম আদালতে মতবিনিময় সভা বড় শিক্ষাবিদদের সংকীর্ণ মানসিকতার কারণে  পঞ্চম ও ৮ম শ্রেণীর পরীক্ষা উঠিয়ে দেয়া হয়েছে-গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রান্সফরমার চুরি করতে এসে ৪ চোর আটক।

অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান ডেলিভারি না করাতে নির্দেশ হাইকোর্টের

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর, ২০২৩
  • ২৮ ১০ জন পড়েছে

চ্যানেল নিউজ : স্বাভাবিক প্রসবের ব্যাপক প্রচারণা এবং অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান সেকশন রোধে গাইডলাইন ছয় মাসের মধ্যে চূড়ান্ত করে ব্যাপকভাবে প্রচার করতে নিদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
এ বিষয়ে জারি করা রুল নিষ্পত্তি করে বৃহস্পতিবার বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।
আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রাশনা ইমাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশ গুপ্ত।
ওই বছরের ৩০ জুন হাইকোর্ট রুল জারি করে নীতিমালা তৈরির নিদেশ দেন।
পরে গাইডলাইন করে আদালতে দাখিল কর হয়।
অমিত দাশ গুপ্ত জানান, স্বাভাবিক প্রসবের ব্যাপক প্রচারণা এবং অপ্রয়োজনীয় সিজারিয়ান সেকশনের নিবারণের লক্ষ্যে গাইডলাইন চূড়ান্ত এবং ৬ মাসের মধ্যে ব্যাপকভাবে প্রচার করতে নিদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
পরে রাশনা ইমাম বলেন, অপ্রয়োজনীয় যে সি-সেকশনগুলো দেখছি, সে বিষয়ে ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের মতে শতকরা ১০ থেকে ১৫ শতাংশের বেশি সি-সেকশন কোনো দেশেরই প্রয়োজনীয় হতে পারে না। বাংলাদেশে এর হার বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে ৮৩ শতাংশ ও সরকারি হাসপাতালে ৩৫ শতাংশ। এনজিও হাসপাতালগুলোতে ৩৯ শতাংশ। এই যে একটা অ্যালার্মিং রাইজ, রেটটা যে বাড়ছে এটা থামানোর জন্য এ মামলা।
২০১৯ সালের ২১ জুন বিবিসি বাংলায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা ‘সেভ দ্য চিলড্রেন’ বলছে বাংলাদেশে গত দুই বছরে শিশু জন্মের ক্ষেত্রে সিজারিয়ানের হার বেড়েছে ৫১ শতাংশ।
এ বিষয়ে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে ২০১৯ সালের জুন মাসে বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্টের পক্ষে তাদের আইন উপদেষ্টা এস এম রেজাউল করিম এ রিট করেন।
বিষয়টি অপ্রয়োজনীয় অস্ত্রোপচার উল্লেখ করে সংস্থাটি বলছে, এতে বাবা-মায়েদের সন্তান জন্মদানে ব্যাপক খরচের ভার বহন করতে হচ্ছে।
সিজারিয়ানে সন্তান জন্মদানে রয়েছে নানা রকম ঝুঁকি, বলছে সেভ দ্য চিলড্রেন। সংস্থাটি তার কয়েকটি তুলে ধরেছে প্রতিবেদনে।
সংস্থাটি বলছে মা ও শিশু উভয়কেই এমন অস্ত্রোপচার ঝুঁকিতে ফেলে।
শিশু জন্মে অপ্রয়োজনীয় অস্ত্রোপচারের ফলে ইনফেকশন ও মাত্রাতিরিক্ত রক্তক্ষরণ, অঙ্গহানি, জমাট রক্ত ইত্যাদির কারণে মায়েদের সুস্থতা ফিরে পেতে প্রাকৃতিক প্রসবের তুলনায় দীর্ঘ সময় লাগে।
এছাড়া সিজারিয়ানের কারণে প্রাকৃতিক জন্মের লাভজনক দিকগুলোও নষ্ট হতে পারে।
যেমন- শিশু মায়ের প্রসবের পথ দিয়ে যদি স্বাভাবিকভাবে বের হয় তাহলে তার শরীর কিছু ভালো ব্যাকটেরিয়া গ্রহণ করতে পারে। এসব ব্যাকটেরিয়া শিশুর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে। অস্ত্রোপচারের ফলে এই প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সে যেতে পারে না। যার ফলে এই ভালো ব্যাকটেরিয়া সে পায় না।
এছাড়া মায়ের বুকের দুধ পান করার জন্য মায়ের সঙ্গে শিশুর যে শারীরিক নৈকট্যে আসা দরকার সিজারিয়ান হলে সেটি প্রয়োজনের তুলনায় দেরিতে ঘটে। কারণ মায়ের সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য শিশুকে তখন কিছু সময় দূরে রাখা হয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পড়ুন
© All rights reserved © 2018 Channel News
Design & Developed By: Gausul Azam IT